তবে টপোলজিতে কোনো বৃত্তকে সরলরেখায় পরিণত করা যায় না। কারণ সরলরেখা বানাতে হলে দুটি বিন্দু দরকার। এর আকৃতি শুধু পরিবর্তন করা যাবে, কিন্তু কোনো কাটাছেড়া করা যাবে না। সুতরাং একজন টপোলোজিস্টের কাছে বৃত্ত এবং বর্গ একই।

ডেনিস সুলিভান বারবার টপোলজির পুরাতন ধারণা পরিবর্তন করে নতুন ধারণা প্রবর্তন করেছেন, ল্যান্ডমার্ক তত্ত্ব প্রমাণ করেছেন, পুরাতন অনুমান দিয়ে নতুন নতুন সমস্যা তৈরি করে সেগুলোর সমাধান করেছেন। তিনি টপোলজিতে বীজগণিত এবং জ্যামিতির ধারণাকে আরও উন্নত করেছেন। ফলস্বরূপ গণিতের অন্যতম শ্রেষ্ঠ পুরস্কার উঠেছে তাঁর হাতে।

ডেনিস পারনেল সুলিভানের জন্ম যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে, ১৯৪১ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি। তাঁর কিশোর বয়সেই পরিবার মিশিগান থেকে টেক্সাসে চলে আসে। সেখানেই বেড়ে উঠেন সুলিভান। প্রথমে রসায়ন নিয়ে পড়াশোনা করেন। পরে টপোলজির টানে মনোনিবেশ করেন গণিতে। ১৯৬৩ সালে রাইস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাশ করেন তিনি। বর্তমানে স্টোনি ব্রুকস বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি টপোলজি গবেষণার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের অত্যন্ত পরিচিত মুখ। এর আগে স্টিল পুরস্কার, উলফ পুরস্কার, বালজান পুরস্কার সহ আরও অনেক পুরস্কার অর্জন করেছেন।

হেনরিক আবেলের শততম জন্মদিন উপলক্ষে সম্মান জানাতে গণিতবিদ সোফাস লাই ১৮৯৯ সালে প্রথম আবেল পুরস্কার প্রস্তাব করেন। তবে প্রথম আবেল পুরস্কার দেওয়া হয় ২০০২ সালে, হেনরিখ আবেলের দু শ তম জন্মদিনে। এখন পর্যন্ত মোট ২৫ জন আবেল পেয়েছেন। গতবছর ইসরাইলের গণিতবিদ আভি ইউগডারসন ও হাঙ্গেরিয়ান গণিতবিদ লাজলো লোভাজকে ভাগাভাগি করে দেওয়া হয় এই পুরস্কার।

লেখক: শিক্ষার্থী, গণিত বিভাগ, সরকারি তিতুমীর কলেজ, ঢাকা

সূত্র: আবেলপ্রাইজ ডট কম

গণিত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন