বইটির লেখক গ্রাহাম ফারমেলো একজন জীবনীকার ও বিজ্ঞান লেখক। ফারমেলো এর আগে কোয়ান্টাম পদার্থবিদ পল ডিরাকের আত্মজীবনী দ্য স্ট্রেঞ্জেস্ট ম্যান: দ্য হিডেন লাইফ অব পল ডিরাক, কোয়ান্টাম জিনিয়াস লিখে ২০০৯ সালে কোস্টা পুরস্কার জিতেছেন। হকিংয়ের পরিবারের সদস্য, বন্ধুবান্ধব, সহকর্মী ও তাঁর পরিচিত লোকদের সঙ্গে কথা বলে বইটি লিখতে শুরু করেছেন গ্রাহাম ফারমেলো। ফারমেলো বলেন, ‘স্টিফেন হকিংয়ের জীবনী লেখা সৌভাগ্য ও আনন্দের ব্যাপার। হকিং শুধু বিখ্যাত বিজ্ঞানীই নন, অসাধারণ মানুষও ছিলেন। তাঁর কৃতিত্ব ও চরিত্রের বিষয়ে নতুনভাবে আলোকপাত করার অপেক্ষায় আছি।’

হকিংয়ের তিন সন্তান লুসি, টিম ও রবার্ট হকিং বলেছেন, বাবার জীবন ও কাজের বিবরণী ফারমেলোকে জানাতে পেরে আমরা আনন্দিত। গ্রাহাম ফারমেলো পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক। তিনি আমাদের বাবার জীবনী লিখবেন এটা আমাদের কাছে আনন্দের তো বটেই, গর্বেরও।

জন ম্যারি প্রেসের ব্যবস্থাপক পরিচালক নিক ডেভিস বলেন, বইটি লেখার জন্য গ্রাহাম ফারমেলো ছাড়া অন্য কারও নাম ভাবতে পারছি না। আমরা খুবই আনন্দিত যে হকিং পরিবার ও হকিংয়ের সহকর্মীরা বইটি লিখতে আমাদের সাহায্য করছেন। বইটি ২০২৪ সালে প্রকাশের সম্ভাবনা রয়েছে।

মহাকাশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন