মহাকাশে ব্ল্যাকহোল শনাক্ত করা সহজ ব্যাপার নয়। প্রচণ্ড মহাকর্ষীয় বল চারপাশে স্থানকালকে এমনভাবে বাঁকিয়ে দেয় যে এর ভেতর থেকে আলোও বেরিয়ে আসতে পারে না। তাই সরাসরি ব্ল্যাকহোল দেখা যায় না।

সাধারণত ব্ল্যাকহোল যখন কোনো নক্ষত্র বা মহাজাগতিক বস্তু শোষণ করে বড় হতে থাকে, তখন এর চারপাশে ধূলিকণা ও গ্যাসের অ্যাক্রিয়েশন ডিস্ক তৈরি হয়। সেখান থেকে নির্গত হয় শক্তিশালী এক্স-রশ্মি। তা দেখেই শনাক্ত করা যায় ব্ল্যাকহোলের অস্তিত্ব।

নিষ্ক্রিয় ব্ল্যাকহোলের ক্ষেত্রে সেই সুযোগ নেই। কারণ এরা নতুন কোনো উপাদান শোষণ করে না। নিষ্ক্রিয় ব্ল্যাকহোলগুলোকে তাই অদৃশ্য বলা যায়।

এ ধরনের ব্ল্যাকহোলকে শনাক্ত করার উপায় হচ্ছে এর সঙ্গী বা যুগল নক্ষত্র। যদি একটি ব্ল্যাকহোল অন্য কোন নক্ষত্রের সাথে একটি বাইনারি সিস্টেমে থাকে, তাহলে নক্ষত্রটিই ব্ল্যাকহোলের উপস্থিতি নির্দেশ করতে পারে।

নতুন আবিষ্কৃত ব্ল্যাকহোলটির অবস্থান এরকম এক বাইনারি সিস্টেমে। বিজ্ঞানীরা প্রায় ১ লক্ষ ৬০ হাজার আলোকবর্ষ দূরে সূর্যের ২৫ গুণ ভরের ও-টাইপ নক্ষত্র পর্যবেক্ষণ করতে গিয়ে অসঙ্গতি লক্ষ্য করেন। পর্যবেক্ষণের ডেটা বিশ্লেষণ করে দেখা যায় অসঙ্গতির কারণ ছোট আকারের নিষ্ক্রিয় ব্ল্যাকহোল। সূর্যের ৯ গুণ ভরের ব্ল্যাকহোলটির ঘটনা দিগন্ত প্রায় ২৭ কিলোমিটার।

ইউরোপিয়ান সাউদার্ন অবজার্ভেটরির (ইএসও) ভেরি লার্জ টেলিস্কোপ (ভিএলটি) থেকে পাওয়া ছয় বছরের পর্যবেক্ষণের ডেটা বিশ্লেষণ করে নিষ্ক্রিয় এই ব্ল্যাকহোলটি আবিষ্কার করে দলটি।

গবেষণাটি নেচার অ্যাস্ট্রোনমি জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

লেখক : শিক্ষার্থী, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ, তেজগাঁও কলেজ, ঢাকা

সূত্র : সায়েন্স অ্যালার্ট

মহাকাশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন