বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অ্যাকটিনাইড সিরিজের ঠিক ওপরে ল্যানথানাইড সিরিজের মৌলটির নাম গ্যাডোলিনিয়াম। ফিনিস বিজ্ঞানী জোহান গ্যাডোলিনের প্রতি সম্মান জানিয়ে মৌলটির জন্য এ নাম বেছে নেওয়া হয়েছিল। তাই একইভাবে অ্যাকটিনাইড সিরিজের নতুন আবিষ্কৃত মৌলের জন্যও বেছে নেওয়া হয়েছিল দুজন বিজ্ঞানীর নাম। তেজস্ক্রিয়তা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা করেছিলেন ফরাসি কুরি দম্পতি মেরি কুরি ও পিয়েরে কুরি। তাঁদের প্রতি সম্মান দেখিয়ে এ মৌলের নাম রাখা হয় কুরিয়াম। আর এর প্রতীক দেওয়া হয় Cm। তবে বলে রাখা ভালো, শুরুতে মৌলটির নাম দেওয়া হয়েছিল ডেলিরিয়াম, লাতিন ভাষায় যার অর্থ পাগলামি।

এখন পর্যন্ত কুরিয়ামের ২১টি আইসোটোপের কথা জানা গেছে। এদের মধ্যে বেশি পরিচিত Cm-242 এবং Cm-244। এসব আইসোটোপের মধ্যে Cm-247-এর অর্ধজীবন সবচেয়ে বেশি, যা ১৬ মিলিয়ন বা ১ কোটি ৬০ লাখ বছর। কুরিয়াম সবচেয়ে বিরল আর দামি মৌল। সে কারণে দৈনন্দিন জীবনে এর ব্যবহারও কম। তবে চন্দ্র ও মঙ্গল অভিযানে পাঠানো রোভারে পাথর ও মাটি বিশ্লেষণের জন্য এক্স-রে স্পেকট্রোমিটারে এটি ব্যবহার করা হয়। আবার কুরিয়াম অতিরিক্ত আলফা কণার নিঃসরণ করে। সে কারণে ভবিষ্যতে ক্ষুদ্রাকার পারমাণবিক অস্ত্রে এর ব্যবহার সম্ভাবনা আছে বলে মনে করেন অনেকে।

শব্দকাহন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন